Type Here to Get Search Results !

"আমি তা পারিনা।"--- তাৎপর্য বিশ্লেষণ কর।/কবির প্রতিবাদী মনোভাব।/বিষয়বস্তু। HS Bengali Suggestion 2023 WBCHSE

 Higher Secondary Bengali Suggestion 2023

HS Bengali Suggestion 2023 WBCHSE

কবিতাঃ- ক্রন্দনরতা জননীর পাশে


প্রশ্নঃ- "আমি তা পারিনা।" - তাৎপর্য বিশ্লেষণ কর।/কবির প্রতিবাদী মনোভাব।/বিষয়বস্তু।

উত্তরঃ- আধুনিক তথা অতি সাম্প্রতিক কালের বলিষ্ঠ কবি মৃদুল দাশগুপ্ত রচিত "ক্রন্দনরতা জননীর পাশে" কবিতায় কবি স্বয়ং নজের অপারগতার কথা বলেছেন উক্তিটির মাধ্যমে।কবিতা সিঙ্গুর নন্দীগ্রাম আন্দোলনে প্রেক্ষাপটে রচিত একটি প্রতিবাদী কবিতা।

    আন্দোলনটি ছিল ওই অঞ্চলের মানুষের শাসক সরকারে জমি অধিগ্রহণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ।আর এই প্রতিবাদের কণ্ঠরোধ হেতু পুলিশ প্রশাসনের নির্মমতা সব ক্রুরতাকেও যেন হার মানায়।বন্দুকের গুলিতে ঝাঁঝরা হয়ে যায় বহু প্রাণ।বহু সন্তানহারা জননীর অশ্রুতে সিক্ত হয়ে যায় তাদের সন্তানদের রক্তে রাঙানো সেই গ্রামের মাটি।সেই সকল ক্রন্দনরতা জননীর পাশে সহমর্মিতা ও প্রতিবাদী মন নিয়ে কবি দাঁড়াতে চেয়ে উক্ত কবিতাটি লিখেছেন।

     কবি বলেছেন,সামাজিক শোষণ ও বঞ্চনার বিরুদ্ধে ঈশ্বরের কাছে প্রতিবিধান চেয়ে বিচারের আশায় বসে থাকা তার পক্ষে সম্ভবপর নয়।বেদনা ও ক্ষোভ মিলেমিশে তার হৃদয়ে একাকার হয়ে গেছে।নিখোঁজ কন্যার ছিন্নভিন্ন মৃতদেহ জঙ্গলে খুঁজে পাবার পর তার হৃদয়ে জ্বলে ওঠে বিক্ষোভের আগুন।আবার নিহত ভাই এর মৃতদেহ দেখে ক্ষোভে ফেটে পড়তে চেয়েছেন তিনি।তিনি একজন কবি,একজন প্রতিবাদী;তাই এসব কিছু দেখে তার বিবেজ জেগে উঠেছে কবিতায়।

     সাহিত্য যেমন একদিকে সুন্দরের আরাধনার আকর,ঠিক তেমনই সমাজ ও বাস্তবতার স্পষ্ট প্রতিফলকও বটে।এক একটি শব্দ বারুদের মত অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে বিষ্ফোরণ ঘটাতে সমর্থ্য বলেই কবির বিশ্বাস।আর সেই উদ্দেশ্যেই কবির এই সৃষ্টি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

LightBlog

Below Post Ad

LightBlog

AdsG

close