Type Here to Get Search Results !

Class 7 Health and Physical Education Model Activity Compilation / Class 7 Model Activity Task Part 8 Health and Physical Education Marks 50

 স্বাস্থ্য ও শারীরশিক্ষা

সপ্তম শ্রেণি

পূর্ণমান - ৫০


(ক) সঠিক উত্তরটিকে বেছে নিয়ে ✅চিহ্ন দাওঃ


(১) ইস্টবেঙ্গল ক্লাব কত সালে প্রতিষ্ঠিত হয়? -

(i) ১৯২১ 

(ii) ১৯১১

(iii) ১৯২০

উত্তরঃ (iii) ১৯২০


(২) অ্যাথলেটিকস শব্দটি কোথা থেকে এসেছে?

(i) ইথানল

(ii) এথেন্স

(iii) অ্যাথলন

উত্তরঃ (iii) অ্যাথলন


(৩) মোহনবাগান ক্লাব কত সালে সাহেবদের হারিয়ে শিল্ড চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল? 

(i) ১৮১১

(ii) ১৯১১

(iii) ১৯১৬

উত্তরঃ (ii) ১৯১১


(৪) মেদাধিক্যের কারণ কি?

(i) শরীর চর্চার অভ্যাস

(ii) হরমোনের সমস্যা

(iii) ফাস্টফুড খাওয়া

(iv) সবকটি

উত্তরঃ (iv) সবকটি


(৫) সাধারণত পূর্ণ বয়স্ক পুরুষদের দেহের ওজনের কত শতাংশ থাকে?

(i)১০℅

(ii) ১৫℅

(iii)২%

(iv) ২৫℅

উত্তরঃ (ii) ১৫℅ 


(৬) মেদ বৃদ্ধি রুখতে কি করতে হবে?

(i) শরীরচর্চা

(ii) পরিমিত খাওয়া

(iii) সঠিক জীবনশৈলী

(iv) সব কয়টি

উত্তরঃ (iv) সব কয়টি 


(৭) খাদ্য থেকে প্রাপ্ত দেহের চাহিদার অতিরিক্ত ক্যালোরি দেহের বৃদ্ধি ঘটাতে পারে?

(i) হৃৎপিণ্ডের কার্যক্ষমতা বাড়ায়

(ii) মেধাধিক্য ঘটায়

(iii) স্নায়ুর কার্যকারিতাকে বৃদ্ধি করে

(iv) হাড়ের গঠন সুদৃঢ় করে

উত্তরঃ (iv) হাড়ের গঠন সুদৃঢ় করে 


(৮) একজন স্বাভাবিক ওজনের শিক্ষার্থীর দেহভর সূচকটি কত? 

(i) ১৮ কিলোগ্রাম / মিটার² 

(ii) ১৮.৫ - ২৪.৫ কিলোগ্রাম / মিটার² 

(iii) ৩০ এর বেশি কিলোগ্রাম / মিটার² 

উত্তরঃ (ii) ১৮.৫ - ২৪.৫ কিলোগ্রাম / মিটার² 


(৯) যদি কোনো শিক্ষার্থীর দেহের ওজন তার স্বাভাবিক ওজন যা হওয়া উচিত তার কম হয় তাহলে কী সমস্যা দেখা দেওয়াত সম্ভাবনা থাকে? 

(i) নিদ্রাহীনতা ও মধুমেহ

(ii) রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার হ্রাস পায়

(iii) মেদাধিক্য

উত্তরঃ (ii) রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার হ্রাস পায়


(১০) কোন্‌টি দেহভর সূচকের সূত্র?

(i) ওজন (কিলোগ্রাম) / উচ্চতা (মিটার)²

(ii) ওজন (কিলোগ্রাম) / উচ্চতা (ফুট)²

(iii) ওজন (পাউন্ড) / উচ্চতা (ফুট)²

উত্তরঃ (i) ওজন (কিলোগ্রাম) / উচ্চতা (মিটার)²


(খ) শূন্যস্থান পূরণ করোঃ


(১) খেলা মানুষের __________ প্রবৃত্তি।

উত্তরঃ সহজাত


(২) গ্রিক শব্দ __________ থেকে জিমনাস্টিক কথাটি এসেছে।

উত্তরঃজিমনস


(৩) জৈনধর্ম __________ মূর্ত প্রতীক হিসাবে বিদ্যামান।

উত্তরঃ অহিংসার


(৪) এন সি সি - র ___________ রং নৌসেনা বাহিনীর প্রতীক।

উত্তরঃ হালকা নীল


(৫) _________ দেহ ও মনের মধ্যে সমন্বয়সাধন করে, যা স্বাস্থ্যের একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক।

উত্তর: ব্যায়াম 


(৬) ব্যায়াম পেশির _________ প্রতিকারের ক্ষেত্রে একটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করে।

উত্তর: রোগ 


(৭) পরিমিত খাদ্যাভ্যাস ও নিয়মিত ব্যায়ামের দ্বারা ____________ দূর করা সম্ভব।

উত্তর: মেদাধিক্য 


(৮) যখন তখন ____________ পড়ার অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে।

উত্তর: ঘুমিয়ে 


(৯) প্রতিদিন যে পরিমাণ ক্যালোরি প্রয়োজন তার থেকে ২০০০ ক্যালোরি কম খাবার গ্রহণ করতে চাইলে অবশ্যই _________ পরামর্শ নিতে হবে।

উত্তর: বিশেষজ্ঞের 


(গ) সঠিক বক্তব্যটির পাশে সত্য এবং ভুল বক্তব্যটির পাশে মিথ্যা লেখো এবং ভুল থাকলে সংশোধন করো।


(১) বিদ্যালয়ের মিড ডে মিলের ফাহাদ একটি পুষ্টি বর্ধক কর্মসূচি।

উত্তর- সত্য


(২) মেদ ঝরাতে ফাস্ট ফুড বর্জন করতে হবে।

উত্তর- সত্য


(৩) ব্যায়াম করলে হৃদপিন্ডের কার্যকারিতা বৃদ্ধি পায়।

উত্তর- সত্য


(৪) প্রণায়াম করলে ফুসফুসের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

উত্তর- সত্য


(৫) খেলাধুলো করলে শিশুর শারীরিক ও মানসিক বিকাশ ঘটে।

উত্তর- সত্য


(ঘ) নীচের যোগাসনের ভঙ্গিগুলি শনাক্ত করে, ছবির পাশের ফাঁকা ঘরে যোগাসনটির নাম লেখো।


উত্তরঃ


(ঙ) নীচের ছবি দেখে ছবির নীচে ফাঁকা ঘরে ভঙ্গিটি শনাক্ত করে ভঙ্গিটির নাম লেখো এবং ভঙ্গিটি কোন ক্রীড়াক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত তার নাম লেখো।


উত্তর:

(ক) পূর্ণধনুরাসন – যোগাসন

(খ) আদেশ ‘তেজ চল’ – কুচকাওয়াজ

(গ) আক্রমণাত্মক কৌশল – কবাডি

(ঘ) এক হাতে কার্ট হুইল – জিমন্যাস্টিক্স

(ঙ) পিরামিড – সমবেত ক্রীড়া

(চ) খালি হাতে ব্যায়াম – ক্যালিসথেনিকস


(চ) নীচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাও।


(১) স্বাস্থ্যের উপর ব্যায়ামের প্রভাব বর্ণনা করো।

উত্তর:

শারীরিক স্বাস্থ্যের উপর ব্যায়ামের প্রভাব :

১. হূৎপিণ্ডের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

২. ফুসফুসের আয়তন ও কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।


সামাজিক স্বাস্থ্যের উপর প্রভাবঃ

প্রতিদিন খেলাধুলার মধ্য দিয়ে সমাজের প্রতিটি স্তরের মানুষের সঙ্গে মেলামেশার সুযোগ হয়। এছাড়া-

১. নিয়মানুবর্তিতা ও শৃঙ্খলাবোধের জ্ঞান বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে ।

২. সহযোগিতার মনোভাব বৃদ্ধি পায়।


মানসিক স্বাস্থ্যের উপর প্রভাব:

১. উদ্বেগ ও হতাশা কমাতে সাহায্য করে।

২. যে-কোনো পরিবেশে ব্যক্তিকে মানিয়ে নিতে সাহায্য করে।


রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা :

১. ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায় ও ডায়াবেটিস হলে তা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে।

২. উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে।


(২) মেদ ঝরাতে কী কী করতে হবে লেখো।

উত্তর: 

(ক) শিশুদের খিদে পেলে তবেই খেতে দিতে হবে তবে এককালীন বেশি করে না খাওয়া উচিত। প্রতিদিন চারবেলা খাদ্য গ্রহণ করা উচিত। সকালে পেট ভরে খাদ্য গ্রহণ করা উচিত তাহলে সেই ক্যালোরি সারাদিনে কাজ করবার সঙ্গে সঙ্গে ব্যায় হবে ফলে অতিরিক্ত মেদ শরীরে জমা হবে না। দুপুর, সন্ধে ও রাতে হাল্কা ও পুষ্টিকর খাদ্য গ্রহণ করতে হবে। রাত্রে খাদ্য গ্রহণের পর অন্তত ১৫ মিনিট হাঁটা উচিত।

(খ) অধিক পরিমাণ শাকসবজি খেতে হবে এবং স্নেহজাতীয় খাদ্য, মাছমাংস যথাসম্ভব কম বা প্রয়োজনমতো খেতে হতে। 

(গ) যখন তখন ঘুমিয়ে পড়ার অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে।

(ঘ) প্রতিদিন ৪০-৬০ মিনিট ধরে ঘাম ঝরানো ব্যায়াম করতে হবে।

(ঙ) মিষ্টি জাতীয় খাবার, ফাস্টফুড, রাস্তায় তৈরি খাবার ও অতিরিক্ত তেল-ঝাল-মশলাযুক্ত খাবার বর্জন করতে হবে। 

(চ) খেলাধুলা-ব্যায়াম-শরীরচর্চায় নিয়মিত অংশগ্রহণ করতে হবে।


(ছ) দু-এক কথায় উত্তর দাওঃ


(১) খেলা কী?

উত্তরঃ শিশুর ঐচ্ছিকভাবে যেসকল স্বতঃস্ফূর্ত ও আবেগময় কার্যক্রমের মাধ্যমে নির্মল আনন্দ উপভোগ করে, তাকে খেলা বলে। একথায় খেলা হল শিশুর জন্মগত, সহজাত, স্বতঃস্ফূর্ত, স্বাধীন আনন্দদায়ক প্রবণতা। 


(২) প্রত্যক্ষ বিনোদন কাকে বলে?

উত্তরঃ যখন সমাজ স্বীকৃত কোণো কাজ বা বিষয়ে কোণো ব্যাক্তি স্বর্তঃস্ফূর্ত ও প্রত্যক্ষভাবে অংশগ্রহনের মাধ্যমে তাৎক্ষনিক ও সহজাত তৃপ্তিলাভ করে, তখন তাকে প্রত্যক্ষ বিনোদন বলে। যেমন - কয়েকজন পিলিয়ার নিয়ে একটি ক্রিকেট খেলার আয়োজন করা।


(৩) সৃজনশীল বিনোদনের একটি উদাহরণ দাও?

উত্তরঃ সৃজনশীল বিনোদনের একটি উদাহরণ হল - ছবি আঁকার মাধ্যমে আনন্দলাভ।


(৪) শারীরশিক্ষার উদ্দেশ্যগুলি উল্লেখ করো।

উত্তরঃ শারীরশিক্ষার প্রধান উদ্দেশ্যগুলি নীচে আলোচনা হলো -

প্রথমত, সুস্বাস্থ্য লাভ করা।

দ্বিতীয়ত, শারীর শক্ষার বিভিন্ন ক্রিয়াকলাপে অংশগ্রহনের মাধ্যমে শারীরিক পটুতা অর্জন।

তৃতীয়ত, সুঅভ্যাস গঠন করা।

চতুর্থত, শারীরিক ক্রিয়াকলাপে অংশগ্রহণের মাধ্যমে শিক্ষাগত অভিজ্ঞতা অর্জন করা।

পঞ্চমত, দৈনন্দিন শরীরচর্চার মাধ্যমে শিশুর চরিত্রের ও ব্যক্তিত্বের বিকাশ ঘটানো।

ষষ্ঠত, শিশুর বিভিন্ন সৃজনশীল গুণের বিকাশ ঘটানো।

সপ্তমত, বিভিন্ন দলগত শরীর চর্চা ও খেলাধূলার মাধ্যমে শিশুর মধ্যে সহযোগিতা, সহনশীলতা প্রভৃতি সামাজিক গুণাবলীর বিকাশসাধন করা।

অষ্টমত, শিশুর দেহের স্নায়ু এবং মাংসপেশীর সমন্বয় সাধন করা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

LightBlog

Below Post Ad

LightBlog

AdsG

close